ভেজাল খাবারে মানুষ দুরারোগ্য রোগে আক্রান্ত হচ্ছে

ভেজাল খাবারে মানুষ দুরারোগ্য  রোগে আক্রান্ত হচ্ছে

ভেজাল খাবারে মানুষ দুরারোগ্য  রোগে আক্রান্ত হচ্ছে

ভেজাল খাবারে মানুষ দুরারোগ্য রোগে আক্রান্ত হচ্ছে

দেশে শিশু মৃত্যুহার কমেছে। তবে অতিরিক্ত রাসায়নিক সার, কীটনাশক ও ভেজাল খাবার গ্রহণের কারণে মানুষের আয়ু কমছে। মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিগুলোর ভেজাল খাবারের কারণে ক্যান্সারসহ বিভিন্ন ধরণের দুরারোগ্য রোগে মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে। এতে একদিকে অসংখ্য মানুষের কর্মদক্ষতা হারাচ্ছে। অন্যদিকে চিকিৎসা খাতে বিপুল পরিমাণ অর্থের অপচয় হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বক্তরা।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক সেমিনারে বক্তরা এ কথা বলেন। ‘সু-স্বাস্থ্য রক্ষায় কার্যকর খাদ্যের ভূমিকা’ শীর্ষক সেমিনারের করে ভোক্তা। এতে সভাপতিত্ব করেন ভোক্তার চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আলী জিন্নাহ।

তারা বলেন, প্রতারণামূলক বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে শিশুদের এবং অভিভাবকদের ক্যামিকেল সমৃদ্ধ খাবারের প্রতি আগ্রহী করে তোলা হচ্ছে। বিজ্ঞাপণ নীতিমালায় কঠোর আইন করার দরকার, যাতে কেউ প্রতারণা করতে না পারে।

সেমিনারে ড. মো: নাজিম উদ্দিন বলেন, ‘‘সবার আগে উৎপাদন প্রক্রিয়ায় পরিবর্তন আনতে হবে। জাতীয় একটা স্ট্যার্ন্ডাড তৈরির মাধ্যমে জৈব সার ও কীটনাশক ভিত্তিক আর্দশ উৎপাদন পদ্ধতি অনুশীলন করতে হবে। মানুষ যাতে বাজারে তৈরি রাসানিক উপাদান মিশ্রিত জাঙ্ক ফুড থেকে ন্যাচারাল খাবারের দিকে ফিরে আসে।”

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর এডভান্সড রিসার্চ ইন সাইন্সেস এর প্রধান বিজ্ঞানী ড. লতিফুল বারী বলেন, ‘‘খাদ্যাভাসে কিছু পরিবর্তন এনে আমরা ভিন্ন কৌশলে খাবার গ্রহণ করতে পারি। এর মধ্য দিয়ে খাদ্য নিরাপত্ত্বা নিশ্চিত করা সম্ভব।’’

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণরসায়ন ও অনুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. হোসেন উদ্দিন শেখর।

প্রবন্ধে বলা হয়, ‘‘বিশুদ্ধ এন্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খাবার খেলে হৃদরোগ, উচ্চরক্তচাপ, ক্যান্সার, ডায়াবেটিসসহ বিভিন্ন ধরণের রোগ থেকে মুক্ত থাকা যায়। কিন্তু এসব খাবার যদি বিষ মেশানো থাকে তবে উল্টো এসব রোগে আক্রান্ত হবে। এন্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ সবজির মধ্যে আদা, রসুন, বাধাকপি, ফুলকপি, টমেটো, আম, কলা, গাজর, পেঁপে সহ বিভিন্ন ধরনের শাকসবজি ও ফল।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রশিকা মানবিক উন্নয়ন কেন্দ্রের চেয়ারম্যান ড. কাজী ফারুক আহম্মদ, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট’র কর্মকর্তা ড. মো: নাজিম উদ্দিন ও ভোক্তার নির্বাহী পরিচালক খলিলুর রহমান সজল।

বার্তা২৪ ডটনেট/এমএস/জাই

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: